রাজ্যে SSC এবং TET-এ নিয়োগে অনিয়ম নিয়ে রীতিমতো তোলপাড় চলছে। এরই মধ্যে একটি পাত্রপাত্রীর বিজ্ঞাপন নিয়ে রীতিমতো আলোড়ন পড়ে গিয়েছে। ‘স্কুল শিক্ষক ব্যতীত’ অর্থাৎ পাত্র হিসেবে সরকারি স্কুলের শিক্ষকদের চান না পাত্রী। সাধারণত, ‘পাত্র চাই’ বিজ্ঞাপনের অন্যতম যোগ্যতাই যাকে পাত্রের সরকারি চাকরি। আর তিনি স্কুল শিক্ষক হলে সম্মানের সঙ্গেই ‘যোগ্যতম’ পাত্রদের তালিকায় আসেন একাধিক সময়। সেক্ষেত্রে শিক্ষকদের প্রতি এই বিরূপ আচরণ কেন? এই নিয়ে রীতিমতো তোলপাড় চলছে নেটপাড়ায়।

কী বলা হয়েছে ওই বিজ্ঞাপনে?

বিজ্ঞাপন অনুযায়ী, পাত্রী সরকারি চাকরি করেন। কর্মসূত্রে থাকতে হয় ধূপগুড়িতে। নিজের বাড়ি উত্তর দিনাজপুরে। উত্তরবঙ্গ সংলগ্ন এলাকায় সরকারি চাকরিজীবী পাত্রী খুঁজছেন ৩২ বছরের ওই তরুণী। কিন্তু, সেখানে রয়েছে একটি বিশেষ শর্ত- “স্কুল শিক্ষক ব্যতীত”।

Jalpaiguri: শিক্ষা সংসদের চত্বরে ‘গণটোকাটুকি’! ভিডিয়ো দেখে হতবাক নেটাগরিকরা
যদিও কেন এই অদ্ভূত আবদার? এই নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তরুণীর সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা হলেও তা ব্যর্থ হয়েছে। উল্লেখ্য, সম্প্রতি SSC এবং TET নিয়োগ নিয়ে রীতিমতো তোলপাড় চলছে রাজ্যজুড়ে। প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে অনিয়মের মামলায় ২৬৯ জনকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করে দিয়েছে আদালত। সম্প্রতি SSC নিয়োগ সংক্রান্ত অনিয়মের একটি মামলার প্রেক্ষিতে রাজ্যের শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পরেশ অধিকারীর কন্যা অঙ্কিতা অধিকারীর জায়গায় তাঁর চাকরি দেওয়া হয়েছে মামলাকারী ববিতা সরকারকে। পাশাপাশি অঙ্কিতার ফেরত দেওয়া বেতনও আদালতের নির্দেশে পাবেন ববিতাই। এই সার্বিক প্রেক্ষিপটে ভাইরাল হওয়ার বিজ্ঞাপন নিয়ে নেটপাড়া সরগরম।

Alipurduar News: ঋণ পেতে গেলে TET পাশের নথি দেখাতে হবে প্রাথমিক শিক্ষকদের! চাঞ্চল্য আলিপুরদুয়ারে
এক নেটনাগরিকের কথায়, “দেখেও ভালো লাগছে, কাল যে শিক্ষকরা মোস্ট এলিজিবল বলে বিবেচিত হত এখন তাঁদের সুপাত্রের তালিকায় রাখছেন না পাত্রীরা। একেই বোধহয় বলে খেলা ঘুরে যাওয়া।” অপর এক নেটিজেন এই পোস্টটি শেয়ার করে ক্যাপশানে লিখেছেন, “কারণ যাই হোক না কেন মনে হয় কেউ যেন মধুর প্রতিশোধ নিচ্ছে। যে সমস্ত শিক্ষক ভাই, দাদা, কাকুরা আনন্দে গদ গদ ভাব নিয়ে মাটিতে পা ঠেকাতেন না, তাঁরা যখন এই ভিডিয়োটি দেখবেন , তাঁদের প্রতিক্রিয়া কী হবে তা দেখার অপেক্ষায় রয়েছি। ‘টু মাচ ফান’। সরকারি শিক্ষকদের কেন জীবনে দেখতে চান না ওই তরুণী? উত্তরটা অজানা থাকলেও নিজেদের মতো করে যুক্ত সাজাচ্ছেন নেটপাড়ার বাসিন্দারা।

পশ্চিমবঙ্গের আরও খবরের জন্য ক্লিক করুন। প্রতি মুহূর্তে খবরের আপডেটের জন্য চোখ রাখুন এই সময় ডিজিটালে



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published.