মধ্যরাতে কলকাতায় চাঞ্চল্যকর ঘটনা। নাবালিকাকে শিয়ালদা স্টেশন চত্বর থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে যৌন হেনস্থার অভিযোগ। ঘটনায় ম্যারাথন তল্লাশির পর তিনজনকে গ্রেফতার করল নারকেলডাঙার পুলিশ। ইতিমধ্যেই তাদের বিরুদ্ধে পকসো আইনে মামলা রুজু হয়েছে। ঠিক কী ঘটেছিল বৃহস্পতিবার মাঝরাতে?

South 24 Parganas News: লজেন্সের লোভ দেখিয়ে নাবালিকার যৌন হেনস্থার অভিযোগ দাদুর বিরুদ্ধে, চাঞ্চল্য মন্দিরবাজারে
কী ঘটেছিল শিয়ালদা স্টেশনে?

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, রবিউল গাজি নামে ২৭ বছরের এক যুবক বসিরহাটের বাদুড়িয়া থেকে এক ১২ বছরর কিশোরীকে নিয়ে কলকাতায় আসে। কিশোরীকে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার উদ্দেশ্যেই সে কলকাতায় এসেছিল বলে অনুমান পুলিশ। যুবকটি মেয়েটির পূর্ব পরিচিত বলেও জানা গিয়েছে। কিন্তু, শিয়ালদা চত্বরে কোনও থাকার জায়গা না পেয়ে শেষ পর্যন্ত স্টেশন চত্বরেই রাতে অপেক্ষা করতে হয় তাদের। এরপর খাবারের সন্ধানে এলাকায় এদিক ওদিক ঘুরতে দেখা গিয়েছিল দু’জনকে। সেই সময়ই এক অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তি খাবার এবং থাকার জায়গার ব্যবস্থা করে দেওয়ার আশ্বাস দেয়। তার ফাঁদে পা দিয়েই ফেঁসে যায় নাবালিকা ও ওই যুবক।

Child Marriage: গুয়াহাটি শহরে বাড়ছে নাবালিকাদের বিয়ের সংখ্যা, উদ্বেগ রাজ্য জুড়ে
নাবালিকাকে দাঁড় করিয়ে রবিউলকে অন্যত্র নিয়ে যায় ওই অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তি। সেখানে রবিউলকে মারধর করা হয় বলেও অভিযোগ। নাবালিকাকে থাকার জায়গায় নিয়ে যাওয়ার নাম করে ফাঁকা এলাকায় নিয়ে যায় ওই ব্যক্তি। এরপর একে একে সেখানে জড়ো হয় তার সাকরেদরা। নারকেলডাঙা এলাকায় নিয়ে গিয়ে তিনজন মিলে মেয়েটির উপর চড়াও হয় বলে অভিযোগ।

National News : ৩ লাখে বিক্রি ‘বালিকা বধূ’, রাজস্থানে মধ্যবয়স্কের কবল থেকে পালিয়ে রেহাই
অন্যদিকে, সংজ্ঞা ফিরতেই নাবালিকার সন্ধান শুরু করে রবিউল। স্থানীয়দের সাহায্যে পুলিশকে খবর দিতে সক্ষম হয় সে। এরপরই নারকেলডাঙা থানার কর্তব্যরত অফিসার ম্যারাথন তল্লাশি শুরু করেন। ডানকুনি, ধনেখালি, বেলমুড়ি এলাকায় তল্লাশি চালানো হয়। অবশেষে রাত সোয়া ৩টে নাগাদ একটি স্কুটিতে নাবালিকাকে নিয়ে যেতে দেখা যায় মূল অভিযুক্তকে। সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখা বর্ধমানের রানিগঞ্জ বাজার থেকে টোটলা আজাদ ওরফে মহম্মদ আজাদকে পাকড়াও করা হয়। উদ্ধার হওয়া নাবালিকার মেডিক্যাল টেস্টের পরই অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে পকসো আইনে মামলা রুজু হয়। রবিউল গাজির ব্যাকগ্রাউন্ড চেক করা হচ্ছে। কী কারণে সে বাদুড়িয়া থেকে নাবালিকাকে কলকাতায় নিয়ে এসেছিল, তা নিয়েও খতিয়ে দেখছে পুলিশ।



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published.