এইসময়, বর্ধমান ও দুর্গাপুর:

বৃহস্পতিবারও কাজে যোগ দিলেন না এসবিএসটিসির দুর্গাপুর ডিপোর অস্থায়ী কর্মীরা। একইসঙ্গে এদিন বিক্ষোভ দেখান বর্ধমানের আলমগঞ্জে দক্ষিণবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ সংস্থার শতাধিক অস্থায়ী চালক ও কন্ডাক্টর। যার জেরে কলকাতা-করুণাময়ী, কলকাতা-ধর্মতলা সমেত বেশ কিছু রুটে বাস চলাচলে বিঘ্ন ঘটে।
SBSTC Bus Strike : বাস চালালে ২৬ দিনের বেতন, আন্দোলনকারীদের প্রতিশ্রুতি SBSTC-র চেয়ারম্যানের
এদিন সকাল থেকে দুর্গাপুর ডিপোর সামনে তাঁবু খাটিয়ে অবস্থান বিক্ষোভে বসেছিলেন কর্মীরা। তবে স্থায়ী কর্মীদের কাজ করতে বাধা দেওয়া হয়নি। রাস্তায় বাস নিয়ে বেরিয়েছেন স্থায়ী কর্মীরা। অস্থায়ী কর্মীদের দাবি নিয়ে এদিন দুর্গাপুরের শ্রমিক নেতাদের নিয়ে বৈঠকের কথা ছিল পরিবহণমন্ত্রী স্নেহাশিস চক্রবর্তী, রাজ্য আইএনটিটিইউসি সভাপতি ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়ের। এ প্রসঙ্গে দুর্গাপুর ডিপোর অস্থায়ী কর্মী গৌতম মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘শুনেছি মন্ত্রী বৈঠক করবেন। কিন্তু আমাদের এখান থেকে কাউকে ডাকা হয়নি। হয়তো ম্যানেজমেন্টের প্রতিনিধিদের নিয়ে বৈঠক করবেন মন্ত্রী। তবে আমাদের দাবি মানা না হলে অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্মবিরতি চলবে।’
Dengue Symptoms: দুর্গাপুর শহরে ডেঙ্গি আতঙ্ক, আক্রান্ত মহিলা
পরিবহণমন্ত্রী স্নেহাশিস চক্রবর্তী বলেন, ‘সমস্যা তো আছে। তবে সমস্যা থাকলে তার সমাধানও রয়েছে। সেটা নিয়ে আমরা আলোচনা করব। এই কর্মীদের প্রতিনিধিদের নিয়ে আজ শুক্রবার আলোচনায় বসার জন্য আমি বলেছি। প্রয়োজনে আমিও ওঁদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে রাজি।’ একইসঙ্গে বাস চলাচল বন্ধ রেখে সাধারণ মানুষকে সমস্যায় ফেলার বিরুদ্ধেও সরব হন পরিবহণমন্ত্রী। বলেন, ‘আমার কিছু সমস্যা হলো আর অবরোধ করে বসলাম, অন্যদের কাজ করতে দেব না, এটাও ঠিক না। ওঁরা অবরোধ না করে অন্য ভাবে আন্দোলন করলে ভালো করতেন। আমার সমস্যার জন্য পুজোর আগে আরও পাঁচশো জনকে সমস্যায় ফেলে দেওয়া কখনও সমর্থনযোগ্য কাজ নয়।’
Coal Smuggling: Pushpa অনুপ্রেরণা পাচারকারীদের! Singham স্টাইলেই মাঠে পুলিশ
অস্থায়ী কর্মীদের মূল দাবি, মাসে ২৬ দিন ডিউটি দিতে হবে, স্থায়ীকরণ করতে হবে, সমকাজে সমবেতনের মতো আরও কিছু দাবি রয়েছে কর্মীদের। আন্দোলনরত দুর্গাপুর ডিপোর প্রায় দুশো অস্থায়ী কর্মীর দাবি, তাঁরা আইএনটিটিইউসির সঙ্গে যুক্ত। সংগঠনের ব্যানার ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি ব্যবহার করে আন্দোলন করছেন তাঁরা। কিন্তু, পর পর দু’দিন কর্মবিরতি পালন করলেও এখনও তাঁদের সঙ্গে সংগঠনের কোনও নেতা দেখা করতে আসেননি।
Durgapur News: প্রোমোটার রাজ রুখতে কড়া পদক্ষেপ নিল আসানসোল দুর্গাপুর উন্নয়ন পর্ষদ
বর্ধমানেও বিঘ্ন ঘটে দূরপাল্লার বাস পরিষেবায়। স্থায়ী কর্মীদের দিয়ে পরিস্থিতি মোকাবিলার চেষ্টা করা হলেও পুরো সামাল দেওয়া যায়নি। অশোক সাহা নামে এক অস্থায়ী বাসচালক বলেন, ‘যাত্রীদের হাতে কী ভাবে আমাদের হেনস্থা হতে হয়, সেটা কেউ বুঝবেন না। মারধরও খেয়েছি আমরা। কর্তৃপক্ষকে জানিয়েও লাভ হয়নি। যন্ত্রাংশের দেখভাল হয় না ফলে রাস্তায় গাড়ি খারাপ হয়ে যায়। রিসোল টায়ারে সরকারি বাস চলে। অথচ কলকাতা-করুণাময়ী, কলকাতা-ধর্মতলা সব থেকে লাভদায়ক রুট। এটা কেন হবে?’ আর এক অস্থায়ী কর্মী সুবীর সাহানি বলেন, ‘২৬ দিন কাজ দেওয়া হবে বলে আমাদের সঙ্গে চুক্তি করা হয়েছিল। ১৩ হাজার টাকা বেতনের সাত থেকে আট হাজার টাকার বেশি পাই না। আমাদের কাজই দেওয়া হচ্ছে না।’



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published.