২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পরে, একটি পোস্ট সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ ভাইরাল। সেই পোস্টে দাবি করা হচ্ছে যে ভারতীয় জনতা পার্টি (BJP) প্রায় ৫০০ ভোটের ব্যবধানে ৩০টি আসনে এবং ১০০০ ভোটের ব্যবধানে ১০০টি আসন জিতেছে। পিটিআই ফ্যাক্ট চেক ডেস্ক ভাইরাল পোস্টের সত্যতা যাচাই করে। তাতে দেখা যায় ওই পোস্টে কার দাবি ভুয়ো। ফ্যাক্ট চেকে দেখা যায় বিজেপি ৫০০ বা ১০০০ ভোটের ব্যবধানে কোনও আসন জিতেনি। ওড়িশার জাজপুরে সবচেয়ে কম ব্যবধানে জিতেছে বিজেপি। সেখানে বিজেপি প্রার্থী রবীন্দ্র নারায়ণ বেহেরা ১,৫৮৭ ভোটে জিতেছেন। ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে ২৪০টি আসন জিতে বৃহত্তম দল হয়েছে বিজেপি। যদিও নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠনা অবশ্য পায়নি।

কী দাবি করা হয়েছে?

ফেসবুক ইউজার চন্দ্র রাজ ৮ জুন একটি পোস্ট শেয়ার করেছেন এবং লেখেন, ‘বিজেপি ৫০০-এর কম ব্যবধানে ৩০টি আসন জিতেছে, ১০০০-এর কম ব্যবধানে ১০০টিরও বেশি আসন জিতেছে, তাহলে কেন বাড়তি ভোটের শতাংশ খতিয়ে দেখা হচ্ছে না?’ ব্রজেশ পান্ডে নামে আরও এক ইউজার নির্বাচন কমিশনের নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে ফেসবুকে লেখেন, ‘বিজেপি ৫০০-এর কম ব্যবধানে ৩০টি আসন জিতেছে, ১০০০-এর কম ব্যবধানে ১০০টির বেশি আসন জিতেছে, এখন এই কেলেঙ্কারীকে আপনি কী বলবেন, ভেবে চিন্তে জবাব দিন?’


কী ভাবে হল ফ্যাক্ট চেক?

ভাইরাল দাবির সত্যতা যাচাই করতে পিটিআই ফ্যাক্ট চেক ডেস্ক প্রথমে ভারতের নির্বাচন কমিশনের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটটি খতিয়ে দেখে। সেখানে দেখা যায় বিজেপি ৫০০ বা ১০০০ ভোটের কম ব্যবধানে কোনও আসন জেতেনি। কমিশনের ওয়েবসাইটে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, ওড়িশার জাজপুরে বিজেপির জয়ের ব্যবধান সবচেয়ে কম। সেখানে বিজেপি প্রার্থী রবীন্দ্র নারায়ণ বেহেরা ১,৫৮৭ ভোটে জিতেছেন।

প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে, সম্পর্কিত কি ওয়ার্ডগুলির সাহায্যে গুগল সার্চের পর, এই সংকান্ত একটি প্রতিবেদনও পাওয়া যায়। তাতে সবচেয়ে কম ব্যবধানে জয়ী প্রার্থীদের তথ্য দেওয়া হয়েছে। সেই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শিবসেনা প্রার্থী রবীন্দ্র ওয়াইকার মুম্বাই উত্তর পশ্চিম আসন থেকে মাত্র ৪৮ ভোটে জিতেছেন। পাশাপাশি কংগ্রেস প্রার্থী অদূর প্রকাশ কেরালার আটিঙ্গাল লোকসভা আসন থেকে ৬৮৪ ভোটে জয়ী হয়েছেন এবং ওডিশার জাজপুর লোকসভা আসন থেকে বিজেপি প্রার্থী রবীন্দ্র নারায়ণ বেহেরা ১,৫৮৭ ভোটে জয়ী হয়েছেন। এর সমস্ত তথ্য থেকেই পিটিআই ফ্যাক্ট চেক ডেস্ক এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয় যে ভাইরল পোস্টে করা দাবিটি ভুয়ো।

(This story was originally published by PTI News and translated and edited by Ei Samay Digital as part of the Shakti Collective)



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *